করোনা আতঙ্কে নওগাঁর হাসপাতালে তালা!

প্রকাশ: ২০২০-০৪-১৪ ০৫:৫২:১১ 103 Views

চিকিৎসকদের সেবা নিশ্চিত ও বেসরকারি ক্লিনিক খুলে রাখার বিষয়ে সরকারের কড়া হুঁশিয়ারি আমলে নিচ্ছে না নওগাঁর ক্লিনিক মালিক ও হাসপাতালের চিকিৎসকরা। করোনাভাইরাসের ঝুঁকি এড়াতে বেশির ভাগ বেসরকারি ক্লিনিক বন্ধ। আর সরকারি হাসপাতালে রোগী আসলেও সেবা না পাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ অবস্থায় সেবা নিশ্চিতে সংশ্লিষ্টদের সতর্ক করার কথা জানালেন জেলা সিভিল সার্জন।
২৫০ শয্যার নওগাঁ সদর হাসপাতালের ফাঁকা বেড দেখে মনে হতে পারে রোগ বালাই অনেকটাই কমে গেছে। কিন্তু বাস্তবতা বলছে ভিন্ন কথা। রোগীদের অভিযোগ যে কোনো রোগ নিয়ে হাসপাতালে আসলে করোনাভাইরাসের অজুহাতে ডাক্তার স্বল্পতায় মিলছে না সেবা। এদিকে বেশির ভাগ বেসরকারি ক্লিনিকে ঝুলছে তালা।

একজন বলেন, হাসপাতালে গিয়ে দেখি তালা দেয়া।

আরেকজন বলেন, এখানে হাসপাতালগুলো ডাক্তাররা করোনার অজুহাতে ছুটি নিয়ে বাসায় বসে আছেন।
তবে সেবা নিয়ে অভিযোগ অস্বীকার করে চিকিৎসায় অবহেলা হচ্ছে না বলে দাবি হাসপাতালের চিকিৎসকের।
নওগাঁ সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মনির আলী আকন্দ বলেন, রোগীরা ডাক্তার পাচ্ছে না এমন অভিযোগ করছে, কিন্ত কোথায় পাচ্ছে না। সেটা আমি বলতে পারব না। তবে নওগাঁ সদর হাসপাতালে সার্বক্ষণিক ডাক্তাররা সেবা দেয়ার জন্য প্রস্তুত রয়েছেন।

সরেজমিনে দেখা গেছে, শহরে হাতেগোণা কয়েকটি ক্লিনিক খোলা রয়েছে। এ অবস্থায় ক্লিনিক মালিকরা দেখাচ্ছেন নানা অজুহাত।
এক ক্লিনিক মালিক বলেন, এখন ২৪ ঘণ্টায় খোলা থাকে এবং ডাক্তাররাও রোগীদের সেবা দিচ্ছেন। কিন্ত রোগী অনেক কম।

একজন বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে আমাদের বলা হয়েছে, যে আপনাদের ক্লিনিকে ২টা রুম প্রস্তুত রাখেন। সে অনুযায়ী আমরা ২টা করে রুম প্রস্তুত রেখেছি।

ক্লিনিক খুলে রাখতে মালিকদের চিঠি দেয়ার দাবি করেন ক্লিনিক মালিক সমিতির নেতা। ক্লিনিক ও হাসপাতালের স্বাস্থ্য সেবা নিয়ে কোনো ছাড় দেয়া হচ্ছে না বলে জানালেন জেলার শীর্ষ স্বাস্থ্য কর্মকর্তা।

নওগাঁ সিভিল সার্জন মো. আক্তারুজ্জামান আলাল বলেন, প্রাইভেট ক্লিনিকগুলোকে আমরা চিঠি দিয়েছি সার্বক্ষণিক খোলা রাখার জন্য। এবং ক্লিনিক খোলা রয়েছে। এছাড়া কিছু ডায়াগনস্টিক সেন্টারও খোলা রয়েছে।

নওগাঁ বেসরকারি ক্লিনিক মালিক সমিতি সাধারণ সম্পাদক মো. আতাউর রহমান খোকা বলেন, এ ক্রান্তিকালে যদি কেউ প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে রাখেন তাহলে আমরাও সমিতির পক্ষ থেকে চাইব প্রতিষ্ঠানগুলো যাতে বন্ধ না রাখে।

জেলায় ৬৮টি বেসরকারি ক্লিনিক ও শতাধিক ডায়াগনস্টিক সেন্টার রয়েছে।

ট্যাগ :



চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মোঃ আব্দুল আজিজ
ডিএমডি : মোঃ আরমান তারেক

বার্তা কক্ষ :

ঢাকা অফিস : ৬ষ্ঠ তলা,আইভরীকৃষ্ণচূড়া,৩/১ ই পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।
চট্টগ্রাম অফিস : সায়মা আবুল স্কয়ার,বড়পুল,হালিশহর,চট্টগ্রাম।
ফোন : ০১৮১৭-৭৪৩৩৮৭
মেইল : channelkornofuli.org@gmail.com