আজ ২৫শে মার্চ, গণহত্যা দিবস

প্রকাশ: ২০২১-০৩-২৫ ০৪:১৫:২৪ 32 Views

Spread the love

কর্ণফুলী ডেস্ক: ২৫’শে মার্চ, বিশ্ব ইতিহাসের ভয়ঙ্কর এক গণহত্যার দিন। একাত্তর সালে পাকিস্তানি বাহিনী কর্তৃক ঘুমন্ত বাঙালিদের নৃশংসভাবে হত্যার এই দিনটিকে রাষ্ট্রীয়ভাবে গণহত্যা দিবস হিসেবে পালন করছে বাংলাদেশ। ২৫’শে মার্চের কালরাতের বর্বোরচিত সেই গণহত্যাকে মানবসভ্যতার আগামীর প্রয়োজনেই বিশ্বসমাজ স্বীকার করে নেবে বলে মনে করেন ইতিহাসবিদরা।

সত্তরের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নিরঙ্কুশ বিজয়ের পর নড়ে বসে পাশ্চিমপাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠী। বাঙালিদের হাতে ক্ষমতা না দিতে শুরু করে নানা টালবাহানা। এমন প্রেক্ষাপটেই একাত্তরের ৭’ই মার্চ সব কিছু নিয়ে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দেন বাঙালির মুক্তি সংগ্রামের অবিসংবাদিত নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। এদিকে পাকিস্তানি সৈন্যরা গোপনে প্রস্তুতি নিতে থেকে বাঙালি নিধনের। ২৫’শে মার্চ মধ্য রাতে ঘুমন্ত ঢাকাবাসীর ওপর চালায় হত্যাযজ্ঞ। ২৫’শে মার্চের কালরাতে পাকিস্তানী বাহিনীর এই নিধনযজ্ঞ ইতিহাসে স্থান পেয়েছে গণহত্যা দিবস হিসেবে। জাতীয় সংসদ থেকে স্বীকৃতির পর কালরাত্রি পালন হচ্ছে রাষ্ট্রীয় ভাবে।

ইতিহাসবিদ অধ্যাপক সৈয়দ আনোয়ার হোসেন বলেন, পচাঁত্তর পরবর্তী সামরিক সরকারগুলো ছিলো মুক্তিযুদ্ধেও পরাজিত শক্তির দোসর। তাদের জঞ্জাল পরিস্কার করতেই জাতির অনেক সময় পার হয়েছে। তাই ২৫’শে মার্চকে আন্তর্জাতিক গণগত্যা দিবস ঘোষণার দাবিটি বিলম্বে উঠেছে।

রাজনৈতিক সদিচ্ছার অভাবে ২৫’শে মার্চ কাল রাতের বর্বরতার বিশ্বস্বীকৃতি আদায় হয়নি মন্তব্য করে সৈয়দ আনোয়ার হোসেন বলেন, দেশী-বিদেশী গণমধ্যমে এই পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ডের বহু প্রমাণ রয়েছে। তাই জাতিসংঘে জোর কূটনৈতিক প্রচেষ্টা থাকলে এই গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি আদায় সম্ভব হবে।

জাতীয় সংসদ থেকে দিনটিকে রাষ্ট্রীয়ভাবে পালনের স্বীকৃতি দিয়ে শুধু দিনটিকে স্মরণই নয়; স্বাধীনতা যুদ্ধের ঊষালগ্নের শহীদদের প্রতিও সম্মান জানানো হচ্ছে বলে মন্তব্য করেন এই গবেষক।



চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মোঃ আব্দুল আজিজ
ডিএমডি : মোঃ আরমান তারেক

বার্তা কক্ষ :

ঢাকা অফিস : ৩৭৩, দিলু রোড, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭।
চট্টগ্রাম অফিস : সায়মা আবুল স্কয়ার,বড়পুল,হালিশহর,চট্টগ্রাম।
ফোন : ০১৩০৬৭৩৪২৪০
মেইল : channelkornofuli.org@gmail.com