লোহাগাড়া মাদ্রাসায় ভাংচুর, হুজুর কে প্রাণনাশের হুমকি

প্রকাশ: ২০১৮-১২-০৭ ১৪:০৪:১৯ 1489 Views

শাহাবুদ্দিন শিহাব, লোহাগাড়া :
লোহাগাড়ার কলাউজানে মরহুম মাওলানা বদিউর রহমান ফোরকানিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানার আঙ্গিনায় সন্ত্রাসী হামলা ও প্রাণনাশের হুমকি,নাশকতার আশঙ্কা।
ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও জায়গার মালিক ইব্রাহিম বলেন, দুপুর আণুমানিক ১২ঃ৩০ মিনিটের সময় রফিক আহমদের নেতৃত্বে তাঁর পিতা আব্দুল হাকিম, তাঁর ছেলে দিদারসহ ৫-৬জন লোক ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে তান্ডব চালায়। এসময় তারা ফোরকানিয়া মাদ্রাসার আঙ্গিনার গাছপালা কর্তন করে উপড়ে ফেলে দেন এবং উচ্চস্বরে স্থানীয়ভাষায় গালাগালি সহ ফোরকানিয়া মাদ্রাসার মালিককে প্রাণনাশের হুমকি প্রদর্শন করেন।
ঘটনার আরেকজন প্রত্যক্ষদর্শী দুবাই প্রবাসী কুতুব উদ্দিন উক্ত প্রতিবেদক কে বলেন, আমি যখন ফোরকানিয়া মাদ্রাসার মসজিদে নামায পড়ার উদ্দ্যেশ্যে বের হই, ঠিক তখন ৫-৬ জনের একটি সংঘবদ্ধ দল আমাদের ফোরকানিয়া মাদ্রাসার আঙিনার মূল্যবান গাছপালা দা, বটি দিয়ে বিরতিহীন ভাবে কেটে যাচ্ছেন, আমি বাঁধা দিতে গেলে সংঘবদ্ধ দলের প্রধান মুহাম্মদ রফিক ধারালো অস্ত্র নিয়ে আমাকে মারার জন্যে তেড়ে আসেন। আমি প্রাণ রক্ষার্থে দৌড়াইয়া পালাইয়া যায়। এর পরে রফিকের বোন খুরশিদা প্রকাশ (খুশিনি) আমাকে এবং আমার মা’কে কাঠের লাকড়ি নিয়ে মারার জন্যে অবস্থান করেন এবং উচ্ছস্বরে গালমন্দ করতে থাকেন।
ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী সাক্ষী ও তৎসংলগ্ন ফোরকানিয়া ও এবতেদায়ী মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক মাওলানা ওসমান গণি প্রতিবেদককে জানান, হামলাকারীরা অত্যন্ত খারাপ ও দুশ্চরিত্র সম্পন্ন, এরা মামলাবাজ আর দাঙ্গাবাজ। সমাজে এদের কোন ভালোবস্থান নেই। এরা ঝগড়াটে। দৈনন্দিন মানুষের সাথে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে ঝগড়া করেন।
আমি যখন ফোরকানিয়া মাদ্রাসায় চাকরিতে আসি ।
তখন এরা কখনো সরাসরি এবং পরোক্ষ ভাবে আমাকে হুমকি প্রদর্শন করেন। তারা বলে বেড়ান যে, আমি যদি চাকরি ছেড়ে না যায়, তবে এরা নানাভাবে আমাকে অপদস্থ করবেন, জামাতের মামলা দিয়ে পুলিশি হয়রানি করবেন। ঘটনার সময় এরা আমাকে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করেন মারধর করার জন্যে আমাকে উচ্চস্বরে হাকাবকা করেন। রফিক ও তাঁর পিতা আব্দুল হাকিমের নেতৃত্বে আর কিছু চিন্হিত বকাটে ও ভাড়াটে সন্ত্রাসী আমাকে হত্যার উদ্দ্যেশে হুমকি প্রদর্শন করেন। আমি সরকারের কাছে এর সঠিক বিচার চাই।
স্থানীয় ওয়ার্ড প্রতিনিধি মমতাজ উদ্দিন বলেন, ঘটনাস্থল আমি পরিদর্শন করেছি, বেশ কিছু মূল্যবান গাছপালা কেটে ফেলে অবস্থায় ও আসবাব পত্র ছড়ানো ছিটানো অবস্থায় দেখেছি এছাড়া রফিক গং এর এরকম ঘৃণিত কাজের নিন্দা জানান। এ বিষয়ে,লোহাগাড়া থানা প্রশাসনের টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং এ বিষয়ে সঠিক তদন্তের আশ্বাস দেন এবং জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনাগুগ ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান।

ট্যাগ :



চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক : মোঃ আব্দুল আজিজ
ডিএমডি : মোঃ আরমান তারেক

বার্তা কক্ষ :

ঢাকা অফিস : ৬ষ্ঠ তলা,আইভরীকৃষ্ণচূড়া,৩/১ ই পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।
চট্টগ্রাম অফিস : সায়মা আবুল স্কয়ার,বড়পুল,হালিশহর,চট্টগ্রাম।
ফোন : ০১৮১৭-৭৪৩৩৮৭
মেইল : channelkornofuli.org@gmail.com